1. nahidbd6969@gmail.com : kurigrampratidin :
  2. 123@kurigrampratidin.com : itsme :
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৩০ পূর্বাহ্ন
প্রতিবেদন :
উপজেলা প্রেসক্লাবের কোষাধক্ষ্য আবু সালেহ্ আহমেদ এর ইন্তেকাল নওগাঁর চন্ডিপুরে জমি দখলের প্রতিবাদে মানববন্ধন কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে রাতের আধাঁরে সংখ্যালঘু পরিবারের জমি দখল নওগাঁয় পৃথক স্থানে বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু রংপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা সোহেল এর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা কুড়িগ্রামে কদমের সৌরভে সেজেছে বর্ষাকাল সরকারের চোখ ফাঁকি দিয়ে তৈরী হচ্ছে রংপুর বিভাগীয় সদর দপ্তরের কার্যালয় পুঠিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে ৪০কেজি গাঁজাসহ ০৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার হাবিপ্রবির ২ ছাত্র হত্যা মামলায় কারাগারে আ.লীগ নেতা কাঞ্চন চৌডালায় USAC এর উদ্যোগে করোনা টিকার নিবন্ধন ক্যাম্পেইন

১০ই জানুয়ারি স্বদেশ প্রর্ত‍্যাবর্তনে স্বাধীনতার বিজয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের মাইলফলক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব

  • Update Time : রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩ Time View

হাছিবুর রহমান রনি,বরগুনা জেলা প্রতিনিধিঃ

আজ ১০ জানুয়ারিতে, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস।
দীর্ঘ ৯মাস আন্দোলন-সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়ে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ বাংলাদেশ স্বাধীন হয়।
পাকিস্তানের শাসন-শোষণ ও অত্যাচার-নির্যাতনের হাত থেকে বাঙালি জাতিকে মুক্ত করতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন। এ আন্দোলনের নেতৃত্ব দিতে গিয়ে জীবনের একটা বড় সময় শেখ মুজিবকে বার বার জেল, জুলুম ও অত্যাচার-নির্যাতন ভোগ করতে হয়।

পাকিস্তান ঔপনিবেশিক শাসনের বিরুদ্ধে গড়ে উঠা বাঙালির সব আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়ার মধ্য দিয়েই শেখ মুজিবুর রহমান হয়ে ওঠেন জাতির অবিসংবাদিত নেতা এবং ভুষিত হন বঙ্গবন্ধু উপাধিতে।

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২ সালের এই দিনে তিনি পাকিস্তানের বন্দিত্ব থেকে মুক্তি পেয়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে পা রেখেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তনের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতাযুদ্ধে বিজয় পূর্ণতা পায়। ১০ জানুয়ারি তিনি ঢাকায় পৌঁছানোর পর আনন্দে উদ্বেল লাখ লাখ মানুষ বিমানবন্দর থেকে রেসকোর্স ময়দান (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) পর্যন্ত তাঁকে স্বতঃস্ফূর্ত সংবর্ধনা জানায়। বিকেল পাঁচটায় রেসকোর্স ময়দানে প্রায় ১০ লাখ লোকের উপস্থিতিতে তিনি ভাষণ দেন।
১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তানি বাহিনী বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধুকে তাঁর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। তাঁকে বন্দী করে রাখা হয় পাকিস্তানের কারাগারে। বাঙালি যখন স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করছে, বঙ্গবন্ধু তখন পাকিস্তানের কারাগারে প্রহসনের বিচারে ফাঁসির আসামি হিসেবে মৃত্যুর প্রহর গুনছিলেন। বাঙালিদের চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হওয়ার পর বিশ্বনেতারা বঙ্গবন্ধুর মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হয়ে ওঠেন। পরাজিত পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী আন্তর্জাতিক চাপে শেষ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।আর সেই সুবাদে জাতি আজ আনন্দিত ও গৌরবময় ১০ জানুয়ারি স্বদেশ প্রত‍্যাবর্তন হিসেবে পালন হচ্ছে যার আগমনে আজ বাংলাদেশ বিশ্বের নন্দিত ও উন্নত এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক অনুপ্রেরণায় অনুপ্রাণিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর শানিত বঙ্গমুজিব কন্যা বারবার নির্বাচিত হয়ে উন্নয়নের দ্বারা অব‍্যাহত রেখেই দেশ পরিচালনা করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

প্রকাশনা

সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি : মোঃ এনামুল হক

উপদেষ্টা সম্পাদক: মোঃ মোজাহার হোসেন

প্রকাশক ও সম্পাদক: মোঃ নাহিদুল ইসলাম

বার্তা সম্পাদক: সি. আই মামুন

নির্বাহী সম্পাদক:

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক:

© All rights reserved © 2024 কুড়িগ্রাম প্রতিদিন
Theme Customized By BreakingNews